গান | চিন্তাসূত্র
৪ অগ্রহায়ণ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ | ১৮ নভেম্বর, ২০১৭ | সকাল ১০:৩১

বাউলমন ও অন্যান্য ॥ গোলাম মোর্শেদ চন্দন

বাউলমন ঘর চিনেছি পর চিনেছি, চিনেছি আপনজনা। সে ঘরেতে থাকেন যিনি, সে হলেন বাউলমনা। আমার আউলা মনের বাউলা হাওয়া নিত্য করে বসবাস। বাউলের একতারাতে মন আমার হয় উদাস। ও সেই উদাস মনে কুঞ্জবনে ভাসে আলোর জোছনা। নিজের ঘর চিনিলে পর চেনা যায় চেনা যায় ভেতর-বাহির। আত্মতত্ত্বের গোপন জ্ঞানে আলোকিত হয় শরীর। চন্দন বলে- সাধুসঙ্গে...

হয়তো তুমি চলেই যাবে ॥ তপন বাগচী

গিয়েছ চোখের সীমানা ছাড়িয়ে গিয়েছ চোখের সীমানা ছাড়িয়ে পাইনি সহসা দুবাহু বাড়িয়ে আবার এসেছ ফিরে কত দুঃসহ চকিত বেদনা (তাই) বেহাগের সুর কখনো সেধো না বাসনার মন্দিরে॥ এই দুদ-না-দেখার অবসরে ভাবনার ফুল সাজিয়েছি থরে থরে (আর) স্মৃতির তরণী অজানার বাঁকে বয়ে যায় ধীরে ধীরে॥ যত দূরে যাও ফিরবেই জানি ঘরে এ-হৃদয় তবু অজানা হুতাশে...

পাখি ও অন্যান্য ॥ গোলাম মোর্শেদ চন্দন

এক নদীর-ই ধারা ঢেউ খেলিয়া ছলাৎছলাৎ, চলছে ভাঙা চাড়া এমন করেই চলছে দেখো, এক নদীর-ই ধারা আমরা দুজন দুই হব না, হব না পথহারা॥ এক্কা দোক্কা কানামাছি, খেলব দুজন মিলে উড়ব দুজন নীলাকাশে, মনের ডানা খুলে হাওয়ায় হাওয়ায় ভেসে ভেসে, দেখব ভাঙাগড়া॥ মৃত্যু এসে কেড়ে নিলে, পাব না তো ভয় যুগলবন্দি হয়ে দুজন, ভয়কে করব জয় নীল জোছনায় লাল...

রজনীকান্ত সেনের গান

॥এক॥ তুমি, নির্মল কর, মঙ্গল করে মলিন মর্ম মুছায়ে॥ তব, পূণ্য-কিরণ দিয়ে যাক্, মোর মোহ-কালিমা ঘুচায়ে। মলিন মর্ম মুছায়ে। তুমি, নির্মল কর, মঙ্গল করে মলিন মর্ম মুছায়ে॥ লক্ষ্যশূন্য লক্ষ বাসনা ছুটিছে গভীর আঁধারে, জানি না কখন ডুবে যাবে কোন্ অকুল-গরল-পাথারে! প্রভু, বিশ্ব-বিপদহন্তা, তুমি দাঁড়াও, রুধিয়া পন্থা; তব, শ্রীচরণ...

বন্ধু মন দিও না ভুলে॥ স.ম. শামসুল আলম

চোখের পানির ফোঁটাগুলো চোখের পানির ফোঁটাগুলো মনের সুতোয় গাঁথলে, জানি ভালোবাসার মালা হয়— ভালোবেসে এমনতর জ্বালা হয়॥ যে সুখ দিয়ে বুক বাঁধা যায় সেই সুখেরই স্বপ্নগুলো বুকের ভিতর কান্না তোলে— বুকটা ফালা ফালা হয় ॥ ভালোবেসে এমনতর জ্বালা হয়। যে রঙ দিয়ে প্রেম গড়া যায় সেই রঙেরই কষ্টগুলো মনের ভিতর আগুন জ্বালে — মনটা...

ঠিকানা ও অন্যান্য গান ॥ গোলাম মোর্শেদ চন্দন

জোছনা আকাশ খুলে আকাশ দেখি জোছনা করি পাঠ। দেহের ভেতর লুকিয়ে আছে চরাচরের মাঠ।। নিশি দিন হই বিমলিন বাজাই সুরে সুরে। মন আমার হারায় খেয়াল দুরে সুদূরে।। (ও সেই) সুরের নেশায়, অমানিশায় ঘুরছি নানান ঘাটে।। হাটে মাঠে পরিপাটে নানান ফুলের ঘ্রানে। হারাতে চাই তখন হারাই ছুটলে তাহার পানে।। ( ও সেই) তাহার আলো, লাগে ভালো খুললেই...

সুখ ও অন্যান্য গান ॥ তপন বাগচী

মায়া অনুরাগের দোলা দেওয়া প্রথম দেখার স্থান সেইখানে আজ  দুচোখ যেতেই উঠল নেচে প্রাণ॥ চারটি চোখের মিলন হওয়া সেই বিকেলে দুইটি হৃদয় দিয়েছিল হৃদয় ঢেলে বাতাস বুঝি শুনিয়েছিল হাজার তারার গান॥ জানি কভু ভাঙবে  না এই মিলনসাঁকো বিনিসুতোর মালা বলেই ছিঁড়বে না কে পেয়েও আমি পাই না বলে বাড়ছে মায়ার টান॥ ভালোবাসা তোমাকে যেটুকু...

তপন বাগচীর তিনটি গান

জ্বালা সারা রাত জেগে জেগে নিজেকে একলা তুমি পুড়িয়ে দিলে আমার সুখের ঘর জানি না কী অপরাধে গুঁড়িয়ে দিলে॥ যা চেয়েছ দিতে চাই তারো চেয়ে বাড়তি বুঝলে না এ বুকের আর্তি ঘাটের কাছের তরী ভিড়তে না দিয়ে তুমি ঘুরিয়ে দিলে॥ যা দিয়েছে তাতে আমি হয়ে আছি পূর্ণ নিমিষেইসব হল চূর্ণ ভালোই করেছে আজ, হদয়ের সব জ্বালা জুড়িয়ে দিলে॥ উজান-ভাটা...

তপন বাগচীর তিনটি গান

ও রে ও কবিরাজ ভাই ও রে ও কবিরাজ ভাই, দাও বলে দাও আমার দেহে হইলো কী অসুখ চোখ বুঁজিলে চোখে ভাসে একটি কালো মুখ॥ ঠোঁটে যে তার মধুর হাসি কণ্ঠ যেন মোহন বাঁশি তার নামে আজ হই উদাসী তার ইশারায় ঘর ছাড়িতে থাকি যে উন্মুখ॥ বাড়ছে অসুখ ক্ষণে-ক্ষণে স্বস্তি তো নাই দেহে-মনে দেখা হইলে কালার সনে কেমন করে কইব কথা, বুক করে ধুকপুক॥ তোমার...

সমর্পণ ও অন্যান্য গান ॥ গোলাম মোর্শেদ চন্দন

তাস তুমি আমার একান্ন তাস, আমি চিরার দুই বাহান্ন তাস মিলে গেলেই, তুমি আমি শুই॥ তুমি তোমার একান্ন তাস। কল ব্রিজের গেমে, চিরাবিহীন ট্রামে, .                           তুরুপ দিলাম তিন। জীবন আমার রেলগাড়ি নয়, দীর্ঘশ্বাসবিহীন ঘুম জাগরণ এক সাথেই, পুড়ে কয়লা হই॥ প্রতিবারই আমিবিহীন, বাজাই সুরের বিণ; .                         কাছে পেয়ে...
মোট পাতা ২ এর ১