ধারাবাহিক | চিন্তাসূত্র
৮ বৈশাখ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ২১ এপ্রিল, ২০১৯ | রাত ১০:২১

ধারাবাহিক Subscribe to ধারাবাহিক

নির্বাণ গল্প-ছয় ॥ আজহার ফরহাদ

ক্ষমতা, অক্ষমতা ও খুন হওয়ার গল্প কী কারণ তোমার আমার কাছে আসার? কী এমন অপ্রাপ্তি কিংবা চাহিদা যার খোঁজে এসেছ? খুলে বলো। না সাধুজি, আমার তেমন কোনো চাহিদা নেই, কেবল আপনার সঙ্গলাভই একমাত্র বাসনা। কী লাভ তাতে? আমার সঙ্গলাভে এমন অনেকেরই যা ছিল পূর্বে তাও ছুটে গেছে, কেউ হয়েছে সর্বহারা, কারও এমন অক্ষমতা এসেছে যে, কোনোমতে...

ইমদাদুল হক মিলনের কথাসাহিত্য-৮ ॥ এমরান কবির

॥পর্ব-আট॥ ছোটগল্পের বাইরে ইমদাদুল হক আরেক ধরনের গল্পের চর্চা করেছেন। আয়তনে ছোটগল্পের চেয়ে বড় কিন্তু উপন্যাসের চেয়ে ছোট। কিন্তু উপন্যাসিকা নয়। ইমদাদুল হক মিলনের কাছে এগুলো বড়গল্প হিসেবে চিহ্নিত হতে দেখা যায়। যেমন তার একটি গ্রন্থের নাম ‘সমস্ত বড়গল্প’। এই গ্রন্থ নিয়ে আলোচনা করতে গেলে প্রথমে কিছু কথা বলে...

ইমদাদুল হক মিলনের কথাসাহিত্য-৭॥ এমরান কবির

॥পর্ব-সাত॥ ইমদাদুল হক মিলন এমন কিছু গল্প লিখেছেন যেগুলো নিয়ে গৌরব করা যায়। যেমন ‘গাহে অচিন পাখি’, ‘রাজার চিঠি’, ‘নিরন্নের কাল’, ‘জোয়ারের দিন’ প্রভৃতি। তার সিরিয়াস গল্প হিসেবে এগুলোরই পরিচিতি বেশি। বোদ্ধা মহলে ঘুরেফিরে এগুলোই আলোচিত হয়। কিন্তু এসবের বাইরে অনালোচিত আরও কিছু ছোটগল্প-বড়গল্প রয়েছে, যেগুলো...

ইমদাদুল হক মিলনের কথাসাহিত্য-৬॥ এমরান কবির

॥পর্ব-৬॥ ইমদাদুল হক মিলনের প্রকাশিত শেষ উপন্যাস ‘মায়ানগর’, যা বিচিত্র দিনের অনুপুঙ্খ চিত্র নিয়ে, মায়ার নিদারুণ কুহকের গভীর ঐকতান নিয়ে পাঠকের মনে নাড়া দিয়ে যায় বিচিত্র স্বাদের। অক্ষর দিয়ে সাজানো জীবনের প্রতিবিম্বের কাছে আমরা কী চাই? কাহিনি? ধারাবিবরণী? সংকটের চিত্র? সমাধানের সূত্র? গুজব? ভাষার মারপ্যাঁচ?...

কবিতার ডিসেকশন: নির্মাণ-৫॥ শাপলা সপর্যিতা

॥পর্ব-৫॥ ‘যে যায় সে দীর্ঘ যায়’—কবিতাটি এক দীর্ঘতম দূরত্ব অতিক্রম করার গল্প। অদ্ভুত কোনো এক বাঁধনে দারুণ প্রেমে নিদারুণ শাসনে দুঃসহ বিরহে প্রজ্বলিত ঐশ্বর্যে এবং বিস্তৃত ও দুরূহ দৈন্যে দীর্ঘ, দীর্ঘ যে জীবনের স্থিতি, যে জীবনের স্তূতি আর তারপর বিষণ্ন নির্মোহ এক নিবিঢ় বিচ্ছেদী দীর্ঘতর জীবন এ কবিতাটি ঠিক তার...

ইমদাদুল হক মিলনের কথাসাহিত্য-৫॥ এমরান কবির

॥পর্ব-পাঁচ॥ এক বহুমাত্রিক ব্যঞ্জন-সন্ধির নাম জিন্দাবাহার। জিন্দাবাহার। পুরান ঢাকার একটি এলাকা। এখানকার থার্ড লেনের সাত নম্বর বাড়ি। নিম্নবিত্তের বহু মানুষের বাস এই বাড়িতে। মিলু নামের সাত বছর বয়সী এক শিশু তার শিশু-চোখ দিয়ে দেখছে বাড়ির বিচিত্র মানুষগুলোকে। তাদের পেশা, প্রতিদিনকার জীবন, হাসি কান্না, আনন্দ...

নজরুলের ধর্মচেতনা-৩॥ দিব্যদ্যুতি সরকার

॥পর্ব-৩॥ বিদ্রোহী কবিতা প্রকাশের পর থেকে এই ফতোয়াবাজির সূচনা হয়। ১৯২২ সালে (১৩২৯ সনের কার্তিক সংখ্যা) ‘ইসলাম দর্শন’ পত্রিকায় মুন্সী মোহম্মদ রেয়াজউদ্দিন আহমদ নামক একজন ইসলামি লেখক নজরুল সম্পর্কে লিখেছিলেন, ‘লোকটা মুসলমান না শয়তান’। তিনি ফতোয়া দেন যে, নজরুলকে আর মুসলমান বলে স্বীকার করা যায় না। ভারতবর্ষে...

ইমদাদুল হক মিলনের কথাসাহিত্য-৪॥ এমরান কবির

॥পর্ব-চার॥ ইমদাদুল হক মিলনের সবচেয়ে আলোচিত উপন্যাস নূরজাহান। কোনো সমাজে যখন মৌলবাদ আস্কারা পায় তখন অশিক্ষিত ধর্মান্ধরা মাথাচাড়া দিয়ে ওঠে। ধীরে ধীরে রাষ্ট্রব্যবস্থাকে নাজুক করতে থাকে। একসময় আইনও তাদের কাছে তোয়াক্কাহীন হয়ে যায়। ঠিক তখনই ধরাকে সরা জ্ঞান করা শুরু করে তারা। পঁচাত্তরের পরে যখন এই মৌলবাদ...

নজরুলের ধর্মচেতনা-২॥ দিব্যদ্যুতি সরকার

॥পর্ব-২॥ ১৯১৭ সালেই তিনি প্রথমবারের মতো, লোকের কাছে বলা যায় এমন একটা চাকরি পান। চাকরিটি হলো সেনাবাহিনীর চাকরি। ব্রিটিশ বাহিনীর হয়ে প্রথম বিশ্বযুদ্ধে অংশ নেওয়ার জন্য তিনি এই চাকরিতে যোগ দেন। নজরুল জানতেন যে, ব্রিটিশ বাহিনী খিলাফতের সমর্থকদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করছে। তার যে ইরাকে যুদ্ধ করতে যাওয়ার কথা ছিল এবং...

ইমদাদুল হক মিলনের কথাসাহিত্য-৩॥ এমরান কবির

॥পর্ব-৩॥ ইমদাদুল হক মিলনের আরেকটি কালজয়ী উপন্যাস ‘পরাধীনতা’। এই উপন্যাস ইমদাদুল হক মিলনকে দেশজুড়ে বিপুল খ্যাতি এনে দেয়। এত প্রভাবী যে উপন্যাস, কী আছে তাতে? এক কথায় যদি বলতে বলা হয়, তাহলে বলতে হবে এই উপন্যাসে আছে কতিপয় মানুষের কথা, যারা নিছক গরিব দেশের নৈ-নাগরিক। জীবন বদলের আশায় আমাদের মতো তৃতীয় বিশ্বের নাগরিকরা...