আন্দোলন-নির্বাচন-নেতাদের নীতি ॥ স্বপন শর্মা | চিন্তাসূত্র
৩ মাঘ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ১৬ জানুয়ারি, ২০১৯ | দুপুর ২:৪৪

আন্দোলন-নির্বাচন-নেতাদের নীতি ॥ স্বপন শর্মা

নেতাদের নীতি
ভালো নেই আজ আর নেতাদের নীতি
স্বার্থের কাছে সব ভালোবাসা প্রীতি
শেষ কথা বলে নাকি নেই অভিধানে
ইদানিং এই নিয়ে খুঁজি না তো মানে।

এ দলে-সে দলে ছোটাছুটি বেশ চলে
পুনরায় ঘরে ফেরা একেই তো বলে।
বড় ছোট সব দলে লিখে রাখে নাম
কখন যে কোন দলে বেড়ে যায় দাম।

জোড়াতালি দিয়ে কেউ দল করে মোট
ক্ষমতার মোহে আজ গড়ে তোলে জোট
তবু জোটে লেগে থাকে বেশ কোন্দল
ভাব দেখে যায় বোঝা কে, বা কোন্ দল?

ভোট এলে জনগণ হয়ে যায় ভাই-
জিতে গেলে চুপচাপ! ধারে কাছে নাই
এটা দেবো সেটা দেবো গাল ভরা বুলি
ভোট শেষে জনতার শূন্য থাকে ঝুলি।

এই হলো এই দেশে, নীতি নেতাদের
এই বেশ চলে দেশ কে রুখে তাদের?

আন্দোলন
সবাই টানে নিজের পক্ষে
সমতা আর হয় না ঐক্যে
স্বার্থের কাছে বসা;
অতিষ্ঠ সব টালবাহানায়
আন্দোলনের দশা।

কেবা ক’টা আসন নেবে
কেবা কারে ছাড় দেবে
হচ্ছে হিসেব কষা;
সিটিং মিটিং ফিটিং নামে
মারছে শুধু মশা।

নানা ধরণ জোটের কথায়
সুষ্ঠু অবাধ ভোটের কথায়
হচ্ছে ওঠা-বসা-
এই হলো হাল ঐক্য জোটের
কর্মসূচির দশা।

কী হয় এবার দেশের মাঝে
দেখুন সেটাই সকাল সাঁঝে
পুরোটাই ছক-কষা;
আন্দোলনের কী ফলাফল
কার কেমন হয় দশা।

নির্বাচন
নির্বাচনি মাইকে এখন
ভোটের বাদ্য বাজে,
জাতীয় ভোটে অলি-গলি
নতুন করে সাজে।

যুক্তি-তর্কের ঝড় উঠেছে
উড়ছে ধোঁয়া চায়ে,
দেশটা এখন ভোটের জ্বরে
কাঁপছে ডানে-বায়ে।

ভোটের আগে এই কটা দিন
প্রার্থী ভীষণ সাধু,
ভোটার পেলে বলছে ডেকে
জ্যাঠা, কাকা, দাদু।

যতই ডাকুক ভুলো না ভাই
ভোটটা দিও তারে,
সকল সময়, সুখে, দুঃখে
কাছে পাবে যারে।

মন্তব্য

চিন্তাসূত্রে প্রকাশিত কোনও লেখা পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।


কোন মন্তব্য নাই.

লেখাটি সম্পর্কে আপনার মন্তব্য লিখুন