‘আন্ডার দ্য ব্লু রুফ’ এখন আমাজনে | চিন্তাসূত্র
১ কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ১৬ অক্টোবর, ২০১৮ | সকাল ৭:৩৩

‘আন্ডার দ্য ব্লু রুফ’ এখন আমাজনে

৩৭ জন বাঙালি কবির প্রায় সাড়ে তিন’শ কবিতা নিয়ে প্রকাশিত হয়েছে ৫৫০ পৃষ্ঠার ইংরেজি কবিতার অ্যান্থলজি ‘আন্ডার দ্য ব্লু রুফ’। এই প্রথমবারের মতো বাঙালি কবিদের এরকম একটি সংকলন প্রকাশ করেছে আমাজন। বইটি পৃথিবীর যেকোনো জায়গা থেকে আমাজনে লগইন করে অর্ডার করা যাবে। বইটির গায়ে মুদ্রিত মূল্য ৩০ ডলার হলেও অনলাইনে কেনা যাচ্ছে মাত্র ২০ ডলারে। এই গ্রন্থটি প্রকাশের মধ্য দিয়ে বাঙালি কবিদের আন্তর্জাতিক বাজারে পদার্পন শুরু হল। বইটি সম্পাদনা করেছেন নিউ ইয়র্কে বসবাসরত কবি কাজী জহিরুল ইসলাম।

যাদের কবিতা এই অ্যান্থলজিতে অন্তর্ভুক্ত হয়েছে তারা হলেন, শামীম আজাদ, মাহবুব হাসান, মাসুদ খান, কাজী জহিরুল ইসলাম, দিলারা হাফিজ, সুব্রত অগাস্টিন গোমেজ, মুজিব ইরম, মজনু শাহ, আবু সাঈদ ওবায়দুল্লাহ, সালেম সুলেরী, শাহ আলম দুলাল, শাকিল রিয়াজ, আবু যুবায়ের, আহমেদ জামিল, আহমেদ মূসা, অজিত পাত্র, একেএম আবদুল্লাহ, আলম সিদ্দিকী, অশোক কর, ফকির সেলিম, ফেরদৌস নাহার, লালন নূর, শিউলি জাহান, মোহাম্মদ নাসিরুল্লাহ, মনিজা রহমান, নাজমুন নাহার, কাজী আবরার জহির, রবিশঙ্কর মৈত্রী, রিপা নূর, রওনক আফরোজ, সাকিফ ইসলাম, শুক্লা গাঙ্গুলি, সুজন বড়ুয়া সাইম, উদয় শংকর দূর্জয়, ভায়লা সালিনা লিজা, জেবুন্নেসা জ্যোৎস্না ও জাকির হোসেন।

এই গ্রন্থে অন্তর্ভুক্ত কবিরা সবাই কোনো না কোনো কারণে বর্তমানে দেশের বাইরে অবস্থান করছেন। কবিদের অনেকে নিজেই নিজের কবিতা বাংলা থেকে ইংরেজিতে অনুবাদ করেছেন, আবার কেউ কেউ সরাসরি ইংরেজিতেই লিখেছেন। অনুবাদ সাহায্য নিয়েছেন পেশাগত অনুবাদকের কাছ থেকে অনেকেই। বাংলা থেকে ইংরেজি অনুবাদে কবিদের সাহায্য করেছেন সিদ্দিক মাহমুদ, লুবনা ইয়াসমীন, ইমরান খান, ফখরুজ্জামান চৌধুরী প্রমুখ। প্রচ্ছদের জন্য নির্বাচিত ছবিটি শিল্পী রাগীব আহসানের একটি পেইন্টিং থেকে নেওয়া হয়েছে।

গ্রন্থটির সম্পাদক কাজী জহিরুল ইসলাম জানান, বইটি আমাজনে প্রকাশ করতে পেরে আমি খুবই আনন্দিত, পৃথিবীর যেকোনো জায়গা থেকে সংগ্রহ করতে আর কোনো বাধা থাকলো না। আমাদের উচিত ভাষার দেয়াল ভেঙে বেরিয়ে আসা, নাহলে পৃথিবীর মানুষ জানতে পারবে না বাঙালি কবিরা কত ভালো কবিতা লেখেন। যাত্রা শুরু হলো, এখন থেকে এ জাতীয় অ্যান্থলজিই শুধু নয়, বাঙালি কবিদের একক ইংরেজি কবিতার বই বের হবে। সাহস করে পাহাড়ে উঠতে শুরু করলে একসময় ঠিকই মানুষ চূড়ায় পৌঁছে যায়, আমরা যাত্রা শুরু করেছি ও আমার বিশ্বাস একসময় ইংরেজি কবিতার ভাষাটি আমাদের নিয়ন্ত্রণের মধ্যে চলে আসবে।

চিন্তাসূত্রে প্রকাশিত কোনও লেখা পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।


কোন মন্তব্য নাই.

লেখাটি সম্পর্কে আপনার মন্তব্য লিখুন