বর্ষা ও অন্যান্য ॥ হরিৎ বন্দ্যোপাধ্যায় | চিন্তাসূত্র
১ শ্রাবণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ১৬ জুলাই, ২০১৮ | রাত ১০:৪২

বর্ষা ও অন্যান্য ॥ হরিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়

বর্ষা মানে
বর্ষা মানে দিনে রাতে
ঝম্ ঝমা ঝম্ বৃষ্টি
আকাশজুড়ে মেঘ শুধু মেঘ
ঝাপসা চোখের দৃষ্টি।

বর্ষা মানে জল থৈ থৈ
রাস্তাঘাটে কাদা
গাড়ির চাকায় জল ছিটকায়
আস্তে চলুন দাদা।

বর্ষা মানে মাতাল বাতাস
কদম ফুলের গন্ধে
সাদা পাতায় ব্যস্ত কবি
গান কবিতার ছন্দে।

বর্ষা
টুপ্ টুপা টুপ্, চড়্ বড়া বড়্
টিনের চালে আওয়াজ তুলে
কে জানে কে আসছে কাছে
কাক ভোরে এই সাতসকালে!

বাবা বললো, ‘আজ খিচুড়ি,
এখন তেলেভাজা’
আজও কি স্কুলে যাব!
এ কী ভীষণ সাজা!
দাদু বললো, ‘আজ পড়া নয় ,
কী আনন্দ, ভাই রে!’
মনে খুশির বান ডেকেছে
ছুটে এলাম বাইরে ।

উঠোনজুড়ে নাচছে দেখি
একটি মেয়ে ফর্সা
এর পরেও কি বলতে হবে
মেয়েটির নাম বর্ষা?

বৃষ্টি কুড়ি
আকাশ থেকে ঝরছে দেখো
ঝিরঝিরে আর ইলশেগুঁড়ি
ভেবে তুমি নিতেই পারো
এটা হলো বৃষ্টি বুড়ি।

মুষলধারে ঝরবে যখন
ওটা হলো বৃষ্টি কুড়ি
বয়স তার অল্প বলেই
ভাসিয়ে দেওয়ার নেইকো জুড়ি।

চিন্তাসূত্রে প্রকাশিত কোনও লেখা পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।


কোন মন্তব্য নাই.

লেখাটি সম্পর্কে আপনার মন্তব্য লিখুন