বাংলা নববর্ষ নিয়ে সাফকথা ॥ কাজী মহম্মদ আশরাফ | চিন্তাসূত্র
১৪ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ২৮ মে, ২০১৮ | সকাল ১০:৫৬

বাংলা নববর্ষ নিয়ে সাফকথা ॥ কাজী মহম্মদ আশরাফ

বাংলা ভাষায় নতুন প্রভাত বলে একটা কথা চালু আছে। কারণ বাংলা সনের নতুন দিন আসতো সকালে, নতুন প্রভাতে। বাংলা একাডেমি তার অসীম এখতিয়ার বলে সেটা মধ্যরাতে নিয়ে গেছে। ইংরেজির মতো রাত বারোটা একমিনিট থেকে নতুন দিনের শুরু।

ইংরেজরা যদি জানতো, তারা চলে যাওয়ার আট বছর পরে একটি প্রতিষ্ঠানের জন্ম হবে, যেটি ইংরেজির প্রতি আন্তরিক তাঁবেদার হবে, তাইলে সারা ভারতে হিন্দি একাডেমি, উর্দু একাডেমি, তামিল তেলেগু, উড়িয়া, অসমিয়া একাডেমি প্রতিষ্ঠা করে রাখতো। এর ফলে তাদের শাসনব্যবস্থা বহাল থাকতো। যেমন বাংলা একাডেমি ইংরেজি গ্রামারের বাংলা ভার্সনকে প্রমিত বাংলা ব্যাকরণ বলে বাজারজাত করছে।

যাই হোক, বাংলা একাডেমির অনেক কিছুই আমি মানি না। তাই আগামী কাল সূর্য উদয়ের ক্ষণ থেকেই পহেলা বৈশাখ ধরব। তার আগে নয়। তাই আজ কাউকে শুভেচ্ছা-টুভেচ্ছা জানানোর প্রয়োজন দেখি না।

চিন্তাসূত্রে প্রকাশিত কোনও লেখা পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।


কোন মন্তব্য নাই.

লেখাটি সম্পর্কে আপনার মন্তব্য লিখুন