ঝড়োদিনের পঙ্‌ক্তিমালা | চিন্তাসূত্র
২ ভাদ্র, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ১৭ আগস্ট, ২০১৮ | রাত ১১:৩১

ঝড়োদিনের পঙ্‌ক্তিমালা

এ বোশেখের নতুন দিনে ॥ শাহনাজ পারভীন
মন খারাপের দিনগুলো সব বোশেখ ঘেঁষে
প্রাণে বাজে নতুন দিনের স্বপ্ন কি যে!
কিন্তু প্রাণে ঝড় বয়ে যায় কিসের নেশায়
ঝড় বয়ে যায় টর্ণেডো আজ কি এক আশায়!

ঝড় বযে যায় সকাল দুপুর সন্ধ্যা বেলা
ঝড় বয়ে যায় মনের মধ্যে অন্য খেলা
এ দিনগুলো এমনি যাবে না পাল্টাবে?
বিপদ সীমার এ দিনগুলো গান কি গাবে?

না কি শুধুই এমন তরো অবহেলায়
যাবেই বয়ে দিনগুলো সব ভীষণ হেলায়
যাবেই না কি অপেক্ষা আর পাগলামিতে!
প্রহর গোনার সময় এবার বদলা নিতে!

এমনতরো অস্থিরতা বুকের মাঝে
জ্বলবে ধিকি সকাল এবং সন্ধ্যা সাঁঝে
এমনতরো অগ্ন্যুপাতের গরম লাভা
পাবে কি আর এ পৃথিবীর শান্তি আভা?

ওগো আমার শান্তি-সোহাগ আমার বুকে
এ বোশেখেই পৃথিবীকে নতুন সুখে
এসো এবার রাঙিয়ে দাও সূর্য তুমি
ভাসিয়ে দাও হাসুক আবার তোমায় চুমি।

বোশেখ মানে ॥ হরিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়
বোশেখ মানেই আকাশ আগুন
গরমে প্রাণ আইঢাই
সব খাবার সরিয়ে দিয়ে
মন চায়—শুধু জল খাই।

বোশেখ মানেই শুকনো পুকুর
শুকিয়ে কাঠ খালবিল
এই সময়ের আকাশ দেখে
ভুলেই যাই আকাশ নীল।

বোশেখ মানেই পয়লা বোশেখ
নতুন খাতা পুজো
সরবত আর লাড্ডু দিয়ে
সারবো পেটের পুজো।

বোশেখ মানেই পঁচিশ তারিখ
সারাটা দিন রবি
গান কবিতায় পূজি তোমায়
আমার প্রাণের কবি ।

বোশেখ মানে ॥  শুভাশিস দাশ
বোশেখ মানে নতুন বছর
হিসাব নতুন খাতায়
বসন্ত যায় বোশেখ আসে
সবুজ নতুন পাতায়।

বোশেখ মানে বর্ষবরণ
রমনা কি গুলশান
বোশেখ মানে গাছেতলাতে
ঠাকুর রবির গান!

বোশেখ মানে কবি কাজীর
মরসি সেই সুর
বোশেখ আমার বাংলাজোড়া
আনন্দ ভরপুর!

বোশেখ মানে আমকাঁঠালের
মামা বাড়ির দিন
কাঁচা আমের সেই স্মৃতিটা
আজও অমলিন!

বোশেখ মানে অনেক কিছু
বাঙালির উৎসব
প্রতি মনে বৈশাখী দিন
করুক কলরব!

বোশেখ বরণ ॥ আবু আফজাল মোহা. সালেহ
চৈত্র শেষে পয়লা বোশেখ
সাজে নববর্ষে,
গানে গানে পান্তা ইলিশ
সাথে ইলিশ সরষে!

নাকে নোলক আলতা শাড়ি
হাতে দিয়ে শাঁখা,
খুকুমণি মাসি-পিসির
হাতে তালের পাখা!

জারি সারি ভাটিয়ালি
দুলদুলনি খেলা,
বাংলা এবার জমবে ভালো
গ্রামে গ্রামে মেলা!

বৈশাখেরই দূত ॥ রীনা তালুকদার

নীল আকাশের ঈশাণ কোণে
কালো মেঘের ভিড়
ভেঙেচুরে আসছে যেন
ঘূর্ণি চাক্ হিড়হিড়।

বৈশাখের এই ঝড়ো হাওয়া
বইছে চারিদিক
আম কাঁঠালের কচি শিশু
পাচ্ছে ভয় অধিক।

পাতা ঝরা দিন ফুরিয়ে
বৈশাখ অবশেষে
আর্বজনা উড়িয়ে নিলো
সঙ্গে কায়ক্লেশে

কালবৈশাখী দৈত্য যেন
হাতি এক অদ্ভূত
কাঁচা আমের মিঠে দিনে
বৈশাখেরই দূত।

 

চিন্তাসূত্রে প্রকাশিত কোনও লেখা পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।


কোন মন্তব্য নাই.

লেখাটি সম্পর্কে আপনার মন্তব্য লিখুন