অন্য ভুবনের পঙ্‌ক্তিমালা ॥ মোস্তাফিজ ফরায়েজী | চিন্তাসূত্র
১১ বৈশাখ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ২৪ এপ্রিল, ২০১৮ | বিকাল ৪:৩৪

অন্য ভুবনের পঙ্‌ক্তিমালা ॥ মোস্তাফিজ ফরায়েজী

রাত্রির সন্ধানে॥ ফিলিপ সুপল্ট
বড্ড দেরি হয়ে গেছে
ছায়া আর ঝড়ো বাতাসের রাতে
বেড়ে উঠছে একটি আর্তনাদ
হুহু করে
অথচ আমি এখন আর অপেক্ষার প্রহর গুনি না
কারও জন্য না
এমনকি দাগকাটা স্মৃতির জন্যও না।

সময়টা পার হয়ে গেছে বহু আগে
কিন্তু ওই যে বাতাসে ভেসে আসা আর্তনাদ
ধেয়ে আসছে আমার দিকে তীব্র বেগে
তার কী হবে!

আর্তনাদের উৎপত্তি জানা নেই
ঘুমের ওপার থেকে গুটি গুটি পায়ে
এসে জুটেছে ও?

আমি কারও জন্য অপেক্ষা করি না,
কিন্তু এখানে অনেক রাত
আগুনের তাজ পরা সে বিদগ্ধ রাত,
এখানে মৃত মানুষের চোখের রাজ।

নীরব, নিস্তব্ধ রাত।

খড়কুটো সব অদৃশ্য হয়েছে
হারিয়ে ফেলেছি।
ঘুমের ওপার থেকে
যা কিছু থাকার কথা তা-ই আবার খুঁজতে হবে,
আমাদের যেতে হবে রাত্রির সন্ধানে।

মানুষ হত্যার পঞ্চতন্ত্র ॥ অ্যান্ড্রে ব্রেটন
মানুষ হত্যার পথ অনেক রয়েছে
চওড়া তক্তায় তুমি তাকে পাহাড়চূড়ায়
তুলতে পারো, তক্তায় সেঁটে মারতে পারো
পেরেক।
এ জন্য তোমার একঝাঁক দর্শকের প্রয়োজন হবে,
আর লাগবে একটি চিৎকার করা মোরগ,
একটি ব্যবচ্ছেদ করা সাদা আলখাল্লা,
কয়েক টুকরো স্পঞ্জ,
কিছু ভিনেগার আর পেরেক মারার জন্য একজন দক্ষ লোক।
অথবা সাদামাঠা উপায়ে তৈরি করা
একটি ধারালো তলোয়ার নিতে পারো,
তারপর নামতে পারো তোমার কাজে…
কিন্তু এজন্য তোমার প্রয়োজন হবে সাদা ঘোড়া
প্রয়োজন হবে তীর ধনুক হাতে ইংরেজ মানুষ,
কমপক্ষে দুটি পতাকা, একটি রাজপুত্র আর
ভোজসভার জন্য একটি দুর্গ।

সহানুভূতি দেখানোর জন্য তার দিকে গ্যাস ছুড়তে পারো
তবে সাবধান, বায়ুপ্রবাহ যেন তোমার পক্ষে থাকে।
কিন্তু তখন এক মাইল মাটি কেটে পরিখা খনন করতে হবে,
কালো জুতো, বিস্ফোরণ পরবর্তী গর্ত
উচ্ছ্বিষ্ট মাটি, ইদুর সৃষ্ট প্লেগ, এক ডজন সঙ্গীত
আর এক পালা স্টিলের গোল হ্যাটের কথা না বললেও হবে।

উড়োজাহাজের যুগে, তুমি উড়তে পারো
তোমার শিকারের চেয়ে অনেক উঁচুতে, তারপর তাকে
একটি সুইচ টিপেই নিশ্চিহ্ন করতে পারো।
তখন তোমাকে পৃথক করতে প্রয়োজন হবে
একটি মহাসমুদ্রের, সরকারের দ্বিমুখী সিস্টেম,
একজন জাতীয় বৈজ্ঞানিক, কিছু কলকারখানা,
একজন মানসিক বিকারগ্রস্ত রোগী আর
এমন একটা জায়গা যেটা বহু বছর ধরে পরিত্যক্ত।

এই যে প্রারম্ভের ইস্তেহার, এগুলোই হচ্ছে মানুষ হত্যার
বেদনাদায়ক পথ। সহজ, সুস্পষ্ট, দেখতে অনেক পরিষ্কার।
বিশ শতকের মাঝখানে কোনো এক অজানা স্থানে
করে যাচ্ছে সে বসবাস, তাকে থাকতে দাও সেখানে।

অনুভূতি ॥ অক্টাভিও পাজ
তুমি যদি হও হলুদাভ ঘোড়া
আমি হব রক্তাক্ত রাজপথ।
তুমি যদি হও শীতের প্রথম তুষারপাত
আমি হব তবে সূর্য রশ্মির প্রথম প্রভাত।
তুমি যদি হও নির্জন রাতের আধার
আমি হব ঝাঁঝালো জ্বালার মন তোমার।
তুমি যদি হও প্রভাতের স্রোত প্রবাহ
আমি হব প্রভাতের প্রথম পাখির ক্রন্দন।
তুমি যদি হও এক ঝুড়ি কমলালেবু
আমি হব অবিনাশী সেই সূর্যচাকু।
তুমি যদি হও নিথর পাথর বেদী
আমি হব অশুভ হাতের অধিকারী।
তুমি যদি হও ঘুমন্ত ভূমি
আমি হব সবুজ চাবুক।
তুমি যদি হও বাতাসের তেজ
আমি হব ছাইচাপা আগুন।
তুমি যদি হও নদীমুখ
আমি হব শৈবালমুখ।
তুমি যদি হও মেঘের বনাঞ্চল
আমি হব তা টুকরো করার কুড়াল।
তুমি যদি হও অভিশপ্ত নগরী
আমি হব এক পশলা পবিত্র বৃষ্টি।
তুমি যদি হও হলদে পর্বত
আমি হব লাল বাহু ছত্রাক।
তুমি যদি হও উদিত সূর্য
আমি হব রক্তাক্ত রাজপথ।

চিন্তাসূত্রে প্রকাশিত কোনও লেখা পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।


One Response to “অন্য ভুবনের পঙ্‌ক্তিমালা ॥ মোস্তাফিজ ফরায়েজী”

  1. নভেম্বর ২২, ২০১৭ at ৯:২৯ অপরাহ্ণ #

    খুব ভালোলাগলো । আশা করি এরকম আরও পোস্ট পাব । ধন্যবাদ ।

লেখাটি সম্পর্কে আপনার মন্তব্য লিখুন