পালিয়ে যাব ও অন্যান্য ছড়া ॥ তানজিল রিমন | চিন্তাসূত্র
১ কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ১৬ অক্টোবর, ২০১৮ | সকাল ৮:০৫

পালিয়ে যাব ও অন্যান্য ছড়া ॥ তানজিল রিমন

তানজিল রিমনমন হয়ে যায় পাখি
শিশির ভেজা ঘাসের ডগায়
পড়লে রোদের আলো
ঝলসে উঠে শিশির কণা
ঠিক যেন চমকালো
মন হয়ে যায় ভালো।

সর্ষে ফুলের মিষ্টি সুবাস
মাখব গায়ে না কি
হলুদ হলুদ দৃশ্য আমায়
করে ডাকাডাকি
মন হয়ে যায় পাখি।

নতুন ধানের গন্ধে ভরে
কিষাণ-চাষির বাড়ি
ধুম পড়ে যায় পায়েস-পিঠার
যায় ভরে সব হাঁড়ি
সে কি কাড়াকাড়ি!

হিমেল হাওয়া ভালোই লাগে
দিন বলো আর রাতই
আমরা সবাই দৌড়ে বেড়াই
কত্ত খেলার সাথি
দস্যিপনায় মাতি।

পালিয়ে যাব
বদ্ধ ঘরে থাকার পরও
আমার একটা আকাশ আছে
বারান্দাতে জানলা দিয়ে
হাত বাড়ালেই পাই যে কাছে!

ঐ যে দূরে একটু আকাশ
আমার কাছে আসতে চেয়ে
আর আসে না দূরেই থাকে
দালান কোঠার বাধা পেয়ে

আকাশ জুড়ে মেঘ উড়ে যায়
মুচকি হাসে আমায় দেখে
যাও পালিয়ে এ ঘর ছেড়ে—
জোড় দে বলে ডেকে ডেকে

ঘরের ভেতর ক্যামনে থাকো
একা একা উদাস মনে
পাখির দেশে ফুলের দেশে
যাও হারিয়ে দূরের বনে।

আমার কিছু ভাল্লাগে না
ঘরের ভেতর কেউ থাকে না
বইয়ের পড়ায় মন বসে না,
খেলতে আমায় কেউ ডাকে না।

ডাকবে কে আর বন্ধুরা কি
খেলতে গেছে দূরের মাঠে
ওরাও ঠিক আমার মতোই
বন্দি কেবল হাজার পাঠে।

 

তিনটা রুমের বাড়ি আমার

মাঠ আছে এক বারান্দাতে

এই মাঠে কী বল খেলা যায়,

গল্প করি গাছের সাথে

 

একপাশে দুই পাথরকুঁচি,

অন্যপাশে গোলাপ হাসে

এদের সাথে সময় কাটে;

দুই চোখে আর স্বপ্ন ভাসে—

 

পালিয়ে যাব হারিয়ে যাব

দূরের বনে খেলব খেলা

ফুলের সাথে পাখির সাথে

গল্প করে কাটবে বেলা।

চিন্তাসূত্রে প্রকাশিত কোনও লেখা পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।


কোন মন্তব্য নাই.

লেখাটি সম্পর্কে আপনার মন্তব্য লিখুন